এই শহরে ভালোবাসা নেই ! – ষ্টারটক বিডি
ষ্টারটক বিডি
এই শহরে ভালোবাসা নেই !

এই শহরে ভালোবাসা নেই !

এই শহরে ভালোবাসা নেই ! কি আমার কথা বিশ্বাস হচ্ছে না? বিশ্বাস না হলে অপেক্ষা করুন আর মাত্র কয়েকটা দিন। এরপর আপনার প্রিয় তারকা আফরান নিশো ও মেহজাবিন চৌধুরীই বলবেন এমন কথা।

এই শহরে ভালোবাসা নেই – নামের একটি নাটকে অভিনয় করেছেন আফরান নিশো ও মেহজাবিন চৌধুরী। নাটকটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন মহিদুল মহিম। এরই মধ্যে নাটকটির শুটিং শেষ হয়েছে।

আসছে ভালোবাসা দিবসে একটি স্যাটেলাইট চ্যানেলে নাটকটি প্রচার হবে বলে জানিয়েছেন নিমার্তা মহিদুল মহিম। মহিদুল মহিম বলেন, ‘ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে নাটকটি নিমির্ত হয়েছে। নাটকটিতে দুটি প্যারালাল গল্প দেখানো হয়েছে। দুটি গল্পেই নিশো এবং মেহেজাবিন কাজ করেছেন।’

তিনি বলেন, ‘একটি গল্প পঞ্চাশ ঊর্ধ্ব দুজন স্বামী-স্ত্রীকে ঘিরে যেখানে অনেক ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র বিষয়ে তাদের ভালোবাসা, একে অপরের প্রতি টান ও সম্পকের্র দৃঢ়তা দেখানো হয়েছে। অপরদিকে আরেকটি গল্পে বিপরীতভাবে তরুণ বয়সের ভালোবাসা দেখানো হয়েছে যেখানে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র বিষয় নিয়ে মান-অভিমান, ঝগড়া-ঝাটি ও বিচ্ছেদ লেগেই থাকে। আশা করছি এই গল্পের নাটকটি প্রচারে এলে দশর্ক পছন্দ করবে।’

নাটকটি সম্পর্কে মেহজাবিন চৌধুরী বলেন, ‘নাটকটি বয়সের সঙ্গে ভালোবাসার বিভিন্ন রূপ নিয়ে লেখা হয়েছে। বয়সের সঙ্গে ভালোবাসার রূপ কিভাবে বদলায় সেটি আসলে তুলে ধরা হয়েছে। আমরা চেষ্টা করেছি ভালোভাবে কাজ করার। বাকিটুকু দশর্কদের ওপর। আশা করছি তারা অপছন্দ করবেন না।’

নাটকটিতে প্রধান সহকারী পরিচালক শাব্দিক শাহীন ও ডিওপি হিসেবে ছিলেন কামরুল ইসলাম শুভ।

আফরান নিশো ও মেহজাবিন চৌধুরীর আরও নাটক

এর আগে শারদীয়া দুর্গাপূজার বিশেষ নাটক ‘মঙ্গলসূত্র’ নামের একটি নাটকে অভিনয় করেন আফরান নিশো ও মেহজাবিন চৌধুরী। নাটকটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন ইমরাউল রাফাত।

নাটকের গল্প প্রসঙ্গে ইমরাউল রাফাত বলেন, ‘গোপা পরিবার থাকে বাড়ির উপর তলায় আর নন্দীর পরিবার থাকে একই বাড়ির নিচ তলায়। জন্মের পরপরই গোপা ও নন্দীর পরিবার ঠিক করে প্রাপ্তবয়স্ক হলে তাদের দু’জনকে বিয়ে দেবে।’

তিনি বলেন, ‘এর মধ্য দিয়েই গোপা আর নন্দী বড় হতে থাকে আর তাদের দু’জনের ভালোবাসার সম্পর্ক তৈরি হতে থাকে। গোপা ও নন্দীর যখন বিয়ের বয়স ছুঁই ছুঁই তখন গোপার পরিবার ব্যবসায় হুট করে সাফল্য লাভ করে। সিদ্ধান্ত নেয় তারা ঢাকার বিলাসী কোনও এলাকায় চলে যাবে। এরসঙ্গে তাদের আচরণেও পরিবর্তন আসে।’

এর আগে ‘ঘুরে দাঁড়ানোর গল্প’ নামের একটি নাটকেও দেখা গেছে এ জুটিকে। নাটকের কাহিনিতে দেখা যায়, গ্রামের বাজারে একটি মোবাইল সার্ভিসিংয়ের দোকান চালান নূর। সে ভালোবাসে একই গ্রামের রীতাকে। কিন্তু সেই ভালোবাসার কথা কখনোই সে রীতাকে বলতে পারে না। উল্টো একদিন সে জানতে পারে, রীতা ভালোবাসে পাশের গ্রামের কামালকে।

 

আরও পড়ুন

জিয়াউল ফারুক অপূর্ব, তাহসান খান ও আফরান নিশো এক সিনেমায়!

ষ্টারটক বিডি ডটকম

জীবানু ছড়িয়ে পড়ছে অভিনেত্রী অহনা-র রক্তে!

ষ্টারটক বিডি ডটকম

অহনা রহমান-কে ফেলে দিয়ে পালিয়ে গেল ট্রাকচালক! ফোনে হুমকি!!

ষ্টারটক বিডি ডটকম

বিয়ের ফুল ফুটলো এবার, শবনম ফারিয়া-র!

ষ্টারটক বিডি ডটকম

নির্বাচনী প্রচারণায় মাহফুজ, গ্রামের বাড়িতে হামলা!

ষ্টারটক বিডি ডটকম

অভিনয়ে ব্যস্ত হচ্ছেন জারা টায়রা

ষ্টারটক বিডি ডটকম