সুপারষ্টার রজনীকান্ত যে কারণে জন্মদিনে দেশে থাকেন না! – ষ্টারটক বিডি
ষ্টারটক বিডি
রজনীকান্ত যে কারণে জন্মদিনে দেশে থাকেন না!

সুপারষ্টার রজনীকান্ত যে কারণে জন্মদিনে দেশে থাকেন না!

তামিল সুপারষ্টার রজনীকান্ত -র জন্মদিন ছিল আজ। তবে বরাবরের মতো এ দিনটাও তিনি কাটালেন দেশের বাইরে। গত ২০ বছর ধরেই তিনি জন্মদিনে দেশে থাকেন না। কারণটা এতদিন ছিল সবার অজানা। তবে দীর্ঘ ২০ বছর পর সামনে এলো থালাইভার বিদেশে জন্মদিন কাটানোর রহস্য।

শিবাজী রাও গায়কৌড় তার আসল নাম হলেও তাকে সবাই চেনেন রজনীকান্ত নামে। আর যার নামের সঙ্গে অবধারিত ভাবে যুক্ত হয়ে গেছে সুপারষ্টার নাম। শিবাজী রাও গায়কৌড় নামে তাঁকে গুটিকতক মানুষ ছাড়া আর কেউই চেনে না। তাঁর পরিচয় গত ৪০ বছরেই বদলে গিয়েছে। কখনও থালাইভা, কখনও সুপারস্টার রজনীকান্ত এই নামেই গোটা বিশ্ব তাঁকে পুজো করে।

দক্ষিণ ভারতের বহু জায়গায় আজ রজনীকান্তের ছবির কাট আউট বা তাঁর মূর্তিকে দুধ দিয়ে স্নান করানো হয়, তো কোথাও রজনীর পুজো করা হয়। ভারতের তামিলনাড়ুতে আর পাঁচটা উৎসবের মতোই পালন করা থালাইভার জন্মদিন।

তবে আজকের এই বিশেষ দিনে অভিনেতা ভক্তদের থেকে দূরেই থাকে। বেশ কয়েক বছর আগে জন্মদিন ভক্তদের সঙ্গে পালন না করার কারণ হিসেবে তিনি একবার চেন্নাই বন্যার, জয়াললিতার মৃত্যুর কথা বলেছিলেন।

তবে এবার জানা গেল বিগত ২০ বছর ধরে দেশের বাইরে গিয়ে জন্মদিনটা কাটাতে কেন পছন্দ করেন সুপারষ্টার। অভিনেতা নিজের জন্মদিনে আগে নিজের ফ্যানদের সঙ্গেই থাকতেন। বহু বছর আগে রজনীর কিছু ডাই হার্ড ফ্যানেরা তাঁর জন্মদিনে অভিনেতার সঙ্গে দেখা করে ফিরছিলেন।

ফেরার পথে দুর্ঘটনায় তাঁদের মৃত্যু হয়। তাদের অভিভাবকরা এসে রজনীকান্তকে জিজ্ঞেস করেছিলেন যে কী করে তাদের মৃত্যু হয়। যার উত্তর রজনীকান্তের কাছে ছিল না। তারপর থেকেই তিনি সিদ্ধান্ত নেন যে তিনি আর নিজের জন্মদিনে বাড়িতে থাকবেন না।

সেই থেকে গত ২০ বছর ধরে জন্মদিনে আর ভক্তদের দেখা দেন না রজনীকান্ত। কিন্তু তারপরেও থামছিল না ভক্তদের স্রোত। শেষপর্যন্ত জন্মদিনে দেশেই না থাকার সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

এক নজরে রজনীকান্ত

১৯৫০ সালের এই দিনে ভারতের ব্যাঙ্গালুর শহরে জন্মগ্রহণ করেন রজনীকান্ত। ১৯৭৫ সালে তিনি চলচ্চিত্র জগতে আত্মপ্রকাশ করেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত তামিল সিনেমা ‘অপূর্ব রাগাঙ্গল’র মাধ্যমে। ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলের সিনেমায় অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি যুক্তরাষ্ট্রের চলচ্চিত্রসহ অন্যান্য দেশের সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন।

অসচ্ছল জীবনের সঙ্গে লড়াই করে শৈশব কেটেছে তার। বেঙ্গালুরু মেট্রোপলিটন ট্রান্সপোর্ট করপোরেশনের বাসের সহকারী হিসেবে কাজ করা অবস্থায় তিনি নাটকে অভিনয় করতেন। তিনি ১৯৭৩ সালে মাদ্রাজ আসেন মাদ্রাজ ফিল্ম ইনিস্টিটিউট থেকে অভিনয়ের ওপর ডিপ্লোমা করার জন্য।

তামিল চলচ্চিত্রে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করতে করতে রজনীকান্ত এক সময় অভিনেতা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হন। তারপর থেকে ভারতীয় চলচ্চিত্রে ‘অভিনয় দেবতা’ হিসেবে পরিচিতি পান। সিনেমায় তার আচরণ এবং সংলাপের ধরন জনপ্রিয়তা বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখে। ‘শিবাজী’ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য ২৬০ মিলিয়ন সম্মানী নিয়ে তিনি জ্যাকি চ্যানের পর এশিয়ার সবোর্চ্চ পারিশ্রমিক গ্রহণকারী তারকা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হন।

আরও পড়ুন

আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল আর নেই, শোকের ছায়া

ষ্টারটক বিডি ডটকম

৬৯ বছরের রজনীকান্ত-র নায়িকা এবার ২৬ বছরের কীর্তি সুরেশ!

ষ্টারটক বিডি ডটকম

শনিবার বিকেল নিয়ে হঠাৎ কেন এত হৈচৈ!

ষ্টারটক বিডি ডটকম

ক্যাটরিনা কাইফ এবার মহেশ বাবুর নায়িকা

ষ্টারটক বিডি ডটকম

নায়ক ফারুক বললেন, সিনেমার কাজ করার জন্য আমি সংসদে যাইনি!

ষ্টারটক বিডি ডটকম

জায়েদ খানের জন্য শাকিব খানকে তুচ্ছ করেছিলাম!

ষ্টারটক বিডি ডটকম