ভালোবাসা দাও ..... নারে বাবা না..... | ঢালিউড | ষ্টারটক বিডি ডটকম
ষ্টারটক বিডি ডটকম
ভালোবাসা দাও ..... নারে বাবা না.....

ভালোবাসা দাও ….. নারে বাবা না…..

ভালোবাসা দাও ….. নারে বাবা না …..! কাছে টেনে নাও ….. নারে বাবা না …..!! ১৯৯৭ সালে মুক্তি পাওয়া ‘কথা দাও’ সিনেমার বিখ্যাত গান এটি। ১৯৯৬ সালের ২ আগষ্ট বিয়ের কিছুদিন পরই মুক্তি পেয়েছিল ছবিটি। ছবির গানে আরিফা পারভিন মৌসুমীর কাছে প্রেম ভিক্ষা করেছিলেন ওমর সানী। সেসময় ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু বাস্তবে ফেরাননি। দুজন দুজনকে কাছে টেনে নিয়েছিলেন জীবনের তরে।

ঢালিউডে এখন ওমর সানী-মৌসুমীর মতো দম্পতি জুটি আর একটিও খুঁজে পাওয়া যাবে না। যে ২০১৮ সালে শোবিজে সবথেকে বেশি ডিভোর্স হলো সেই বছরই কিনা এ দম্পতি পালন করলেন সুখী দাম্পত্যর ২২ বছর। এ বছরই পালিত হলো একসঙ্গে পথচলার ২৫ বছর। কারণ বাংলা সিনেমার সুপারহিট এ জুটি যে প্রেমে মজেছিলেন আরো তিন বছর আগে ১৯৯৪তে। ঠিক তার আগের বছরই ‘দোলা’ ছবির মাধ্যমে পরিচয় হয় দুজনের।

এত দীর্ঘ পথ পাড়ি দেওয়া কি সহজ কথা? না সহজ না। তবে এ অসাধ্য সাধন হয়েছে দুজনের প্রতি দুজনের আকাশসম ভালোবাসা, বিশ্বাস আর ভরসার কারণে। দুজন দুজনকে কথা দিয়েছিলেন মৃত্যু ছাড়া আর কেউ তাদের আলাদা করতে পারবে না।

ওমর সানী বলেন, ‘এটা একটা দীর্ঘ পথ। সবার আশির্বাদে আমরা সুখী জীবনযাপন করছি। এটা আমাদের সৌভাগ্য । আমরা চাই এভাবেই ছেলে-মেয়েকে নিয়ে হাসি-খুশিতেই বাকি জীবন কাটিয়ে দিতে। কিন্তু সিনেমার পর্দায় আমার এবং মৌসুমীর পথচলার পঁচিশ বছর কীভাবে যে পেরিয়ে গেল তা টেরই পাইনি।

তিনি বলেন, ‘দর্শকের ভালোবাসায় আমরা এতটা পথ এত সুন্দরভাবে পাড়ি দিতে পেরেছি, এর জন্য দর্শকের প্রতি আমাদের অনেক কৃতজ্ঞতা, দর্শকের জন্য সবসময়ই আমাদের ভালোবাসা থাকবে। আমি এবং মৌসুমী সবসময়ই আপনাদের কাছে দোয়া চাই যেন আল্লাহ আমাদের সুস্থ রাখেন।’

ভালোবাসা দাও ..... নারে বাবা না.....

আরিফা পারভিন মৌসুমী বলেন, ‘আমরা সুখে দুঃখে একসঙ্গে প্রায় দুই যুগ পার করেছি। আমাদের দু’ সন্তান ফারদিন এবং ফাইজাকে মানুষের মতো মানুষ করার চেষ্টা করছি। নিজেদের জীবনের কিছুটা গল্প এরই মধ্যে দর্শকের কাছে তুলে ধরার চেষ্টা করছি ‘ভালোবাসার বিশ বছর’-টেলিফিল্মে।’

তিনি বলেন, ‘সিনেমার পর্দায় জুটি হিসেবে আমাদের পথচলার এতটা সময় পেরিয়ে গেছে, সেটা আসলে আলাদা করে ভাবার সুযোগও পাইনি। ‘দোলা’ থেকে শুরু করে আজকের ‘মধুর ক্যান্টিন’ পর্যন্ত আমাদের পথচলাকে সমৃদ্ধ করতে যারাই আন্তরিকতা নিয়ে পাশে ছিলেন তাদের প্রতি মনের গভীর থেকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আমার সংসার জীবনে, শিল্পী জীবনে সুখে-দুঃখে সবসময়ই সানী আমার পাশে ছিল। এটাও একজন মানুষ হিসেবে, শিল্পী হিসেবে আমার জন্য অনেক বড় পাওয়া।’

১৯৯৩ সালে আলাদা আলাদা ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্র যাত্রা শুরু হয়েছিল ওমর সানী ও মৌসুমীর। তাদের প্রথমবার দেখা মেলে ‘দোলা’ ছবির মাধ্যমে। ১৯৯৪ সালের ২ ডিসেম্বর মুক্তি পেয়েছিল ছবিটি। সেই হিসেবে গত ২ ডিসেম্বর সিনেমার পদার্য় জুটি হিসেবে তারা রজত জয়ন্তীতে পদাপর্ণ করলেন।

‘দোলা’ সিনেমার পর তারা জুটিবদ্ধ হয়ে কাজ করেছেন অনেকগুলো ছবিতে। তার মধ্যে ‘আত্ম অহংকার’, ‘প্রথম প্রেম’, ‘মুক্তির সংগ্রাম’, ‘হারানো প্রেম’, ‘গরীবের রানী’, ‘প্রিয় তুমি’, ‘সুখের স্বর্গ’, ‘মিথ্যা অহংকার’, ‘ঘাত প্রতিঘাত’, ‘লজ্জা’, ‘কথা দাও’ ‘স্নেহের বাঁধন’, ‘সাহেব নামে গোলাম’ ছবিগুলো উল্লেখযোগ্য।

এছাড়া মেঘলা আকাশ (২০০১), দেবদাস (২০১৩) এবং তারকাঁটা (২০১৪) ছবির জন্য তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন মৌসুমী।

আরও পড়ুন

শবনম ফারিয়া-সানাই এবার মুখোমুখি!

ষ্টারটক বিডি ডটকম

ফাগুন হাওয়ায় : দেশ প্রেমে উজ্জীবিত করা এক ছবি

শাহাদাৎ খান

পরীমনি এবার জানালেন, কবে প্রথম চুমু খেয়েছিলেন!

ষ্টারটক বিডি ডটকম

শাকিব খানের ‘রাজনীতি’ নিয়ে কলকাতায় অপু বিশ্বাস!

ষ্টারটক বিডি ডটকম

শাকিবের ‘ফাইটার’ এর শ্যুটিং পেছাল যে কারণে….

শাহাদাৎ খান

প্রেম আর হানিমুন শেষে বাগদান সারলেন পরীমনি!

ষ্টারটক বিডি ডটকম